PSCC রিসোর্ট ভ্রমন – আপওয়ার্ক প্রিমিয়ার ক্লাবের সাথে

গাজিপুরে এখন প্রচুর রিসোর্ট আছে, একেকটার একেক রকম বিশেষত্ব। ছোটখাট ট্যুরের জন্য এসব রিসোর্ট অনেক ভালো অপশন। PSCC ( Pubail Socio Cultural Centre-Resort ) এমনই একটি রিসোর্ট যার অবস্থান গাজিপুরের পুবাইল জয়দেবপুর রোডে। সাজানো গোছানো মনোরম পরিবেশে দিন কাটানোর জন্য এটি ভালো একটি রিসোর্ট। খেলার মাঠ, সুইমিং পুল, প্যাডেল বোটের ব্যবস্থা আছে এখানে।

আপওয়ার্ক প্রিমিয়ার ক্লাবের ঈদ পুনর্মিলনী ট্যুরের জন্য এবার সিলেক্ট হয়েছিলো এই পিএসসিসি রিসোর্ট। তার আগে গতবছর আমরা গিয়েছিলাম পিএসসিসির ঠিক পাশেরই জল ও জংগলের কাব্য রিসোর্টে। আপওয়ার্ক প্রিমিয়ার ক্লাব বাংলাদেশি ফ্রিল্যান্সারদের একটু স্পেশালাইজড ক্লাব যেখানে শুধুমাত্র আপওয়ার্কে কাজ করেন এবং টপ রেটেড এমন ফ্রিল্যান্সাররা জয়েন করতে পারেন।

শুরুতেই পিএসসিসি সম্পর্কিত কিছু তথ্য দিয়ে রাখিঃ

খরচঃ

ডে ট্যুরের জন্য জনপ্রতি খরচ ১৫০০ টাকা। এর মধ্যে আছে সকালের নাস্তা, লাঞ্চ এবং বিকালের নাস্তা, ১ ঘন্টা সুইমিং। এছাড়াও চাইলে নৌকা চালাতে পারবেন, তার জন্য খরচ ২০০ টাকা প্রতি ঘন্টা। সারাদিনের জন্য নিলে ১০০০ টাকা সম্ভবত।

কিভাবে যাবেন ?

সরাসরি নিজস্ব গাড়ি নিয়ে যাওয়া যায়, পার্কিং এর পর্যাপ্ত জায়গা আছে। গাড়ি ছাড়া যাওয়ার ক্ষেত্রে জয়দেবপুর শিববাড়ি এবং পুবাইল থেকে রিক্সা, অটো পাওয়া যায়।

ফিরে আসি আমাদের ট্যুরে…

জুলাই ১৪, ২০১৮

আমাদের টিমে প্রায় ৫০ জন ছিলো, ২ টা মিনিবাস নিয়ে সকাল ৬ টায় ঢাকা থেকে যাত্রা শুরু। এছাড়াও কয়েকজনের পার্সোনাল গাড়ি ছিলো।

রিসোর্টে পৌছানোর পর সকালের নাস্তা পরিবেশন করা হলো। নাস্তায় পরোটা, ডাল, সবজি, নান, ডিম, চা সহ আরো কিছু আইটেম ছিলো।

নাস্তার পর বস্তা দৌড়, এরপর ফুটবল খেলার মধ্য দিয়ে দুপুর প্রায় ১ টা বেযে গেলো। সবাই মিলে তাই এবার সুইমিং পুলে নেমে পড়লাম। অনেকটা সময় সুইমিং পুলে দাপাদাপি কর‍তে করতেই কেটে গেলো, এর মধ্যেই শোনা গেলো কিছুক্ষনের মধ্যে লাঞ্চ ক্লোজ হয়ে যাবে।

লাঞ্চ ক্লোজিং এর হুমকি পেয়ে যে কয়জন পুলে ছিলাম সবাই উঠে গিয়ে লাঞ্চে যোগ দিলাম।

লাঞ্চের আইটেমে ভাত, মাছ, মাংশ, ভেজিটেবল সবই ছিলো।

লাঞ্চের পর কিছুক্ষন নৌকা ভ্রমন। এর মাঝেই হয়ে গেলো আমাদের র‍্যাফেল ড্র এবং খেলাধুলার পুরষ্কার বিতরনী।


এরপর বিকেলের নাস্তা, মিষ্টি আর পাকোড়া ছিলো নাস্তার মধ্যে।

এবং অবশেষে সন্ধ্যায় আবার ঢাকার পথে রওনা হয়ে গেলাম। ফিরে গেলাম বাড়ি আর অপেক্ষার পালা শুরু হলো নেক্সট ট্যুরের।

শেয়ার করুন

You Might Also Like

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।